বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম কয়লা খনির মউ স্বাক্ষর আগামী সপ্তাহেই, জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কলকাতা, বুধবার

দেউচা পাঁচামি কয়লা খনি নিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার নবান্নে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, দেশের কয়লা সমস্যা এখান থেকে সমাধান হয়ে যাবে। এটা আমাদের অর্থনীতিকে চাঙ্গা করবে। একই সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, এক লাখ মানুষের কর্মসংস্থান হবে। বীরভূম, বর্ধমান, হুগলির সঙ্গে জঙ্গলমহলের এলাকা বিশেষ ভাবে উপকৃত হবে।তবে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, অনেক দিন ধরে আমরা এটা করতে চাইছিলাম অবশেষে এটা সম্পূর্ণ করতে পারলাম। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, আগামী সপ্তাহে মউ স্বাক্ষরিত হবে। এই কাজ সম্পূর্ণ করতে প্রাথমিক পর্বে ১২ হাজার কোটি টাকা খরচ হবে। তবে পরবর্তীতে খরচ আরো বাড়বে বলেই জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তবে এই ক্ষেত্রে কোন তারাতারি না করেই কাজ করতে চাইছে রাজ্য সরকার। গোটা বিশ্বে যারা যোগ্য তাদের এখানে নিয়ে এখানে সমীক্ষা করা হবে। সমীক্ষা করার পর তবেই কাজ শুরু করা হবে। এই জন্য মুখ্যসচিব এর নেতৃত্বে একটি কমিটি তৈরি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন মুখ্যমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, কয়লা উত্তোলন করতে আরো পাঁচ বছর সময় লাগবে। পাথর কেটে তারপর সেখান থেকে কয়লা তোলা হবে।

১১ হাজার ২২২ একর জমির উপর এই খনি অবস্থিত। ওখানে চার হাজার মানুষ বসবাস করে। তাদের পুনর্বাসনের কাজটিকে বেশ দিয়ে দেখছে রাজ্য সরকার। তাদের পুনর্বাসন সম্পন্ন হওয়ার পর তবেই কাজে হাত দেবে রাজ্য।

Be the first to comment on "বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম কয়লা খনির মউ স্বাক্ষর আগামী সপ্তাহেই, জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*


Skip to toolbar