সিঙ্গুরে মিছিল লকেটের, জয়ের বিষয়ে আশাবাদী জানালেন প্রার্থী

সিঙ্গুরে মিছিল লকেটের, জয়ের বিষয়ে আশাবাদী জানালেন প্রার্থী

স্টাফ রিপোর্টার,

সিঙ্গুর, শনিবার

নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে বিজেপির অনুকূলে মানুষের সমর্থন ততোই বাড়ছে আর অন্যদিকে চিন্তা বাড়ছে শাসক দল তৃণমূলের।

এই ভাষাতেই শনিবার তৃণমূল কংগ্রেসকে আক্রমণ করলেন হুগলি লোকসভা কেন্দ্রের ভারতীয় জনতা পার্টির প্রার্থী লকেট চট্টোপাধ্যায়। শনিবার সিঙ্গুরের বেশ কিছু এলাকা হুড খোলা গাড়িতে চেপে নির্বাচনী প্রচার করেন তিনি। রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে থাকা মানুষদের হাত নেড়ে অভিবাদন জানান লকেট চট্টোপাধ্যায়। পাল্টা অভিনন্দন জানান রাস্তার দুই ধারে দাঁড়িয়ে থাকা সাধারন মানুষ। লকেটকে দেখার জন্য বেশ কিছু সময় রাস্তায় অপেক্ষায় থাকেন গ্রামের মহিলারা।

সিঙ্গুরের রতনপুরে ফুল দিয়ে অভিবাদন জানানো হয় নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়কে। লকেট চট্টোপাধ্যায় এর নির্বাচনী প্রচারে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী ছিলেন দলের কর্মী সমর্থকরা। হুগলি লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থীকে জেতাতে স্লোগান তোলেন তারা।এর আগে সিঙ্গুরে প্রচারে এসে লকেট জানিয়েছিলেন,

জমি আন্দোলনের মাধম্যে শুধু এখান থেকে রাজনৈতিক সুবিধা তুলে নিয়ে গেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল। কিন্তু এখানে মানুষের কোন উন্নয়ন হয়নি। কৃষকদের কোন সুবিধা হয়নি। এখানে শিল্প হয়নি। জমি নষ্ট হয়েছে।

লকেট চট্টোপাধ্যায় বলেন,

বিজেপি পারে কৃষকদের প্রকৃত উন্নয়ন করতে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের একাধিক নীতির তীব্র সমালোচনা করেন পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির মহিলা সভানেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়।সিঙ্গুর বিধানসভার বাগডাঙ্গা ছিনামোড় পঞ্চায়েতের নান্দা হাটতলায় এদিন জনসভা করেন লকেট চট্টোপাধ্যায়। সেখানে মানুষের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।হুগলি লোকসভা কেন্দ্রের মধ্যে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিধানসভা কেন্দ্র সিঙ্গুর। সিঙ্গুর বরাবরই তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি। এখানে বিগত বেশ কয়েকটি বিধানসভা নির্বাচনে ভালো ব্যবধানে নির্বাচিত হয়ে আসছেন সিঙ্গুরের মাস্টার মশাই রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য। কিন্তু শেষ পঞ্চায়েত নির্বাচনে প্রকাশ্যে এসেছিল তৃণমূলের রবীন্দ্রনাথ বনাম বেচারাম এর বিবাদ। বিজেপি নেতৃত্ব আশাবাদী দুই নেতার বিবাদ প্রকাশ্যে থাকায় বাড়তি সুবিধা হবে বিজেপির। একই সঙ্গে তরুণ প্রজন্মের সমর্থন বিজেপির অনুকূলে থাকবে বলেই দাবি বিজেপি জেলা নেতৃত্বের।অন্যদিকে হুগলি লোকসভা কেন্দ্র এক সময় ছিল বামেদের শক্ত ঘাঁটি। সেখানে টানা নির্বাচিত হতেন রূপচাঁদ পাল। শেষ দুটি নির্বাচনে হুগলি থেকে জেতেন তৃণমূলের রত্না দে নাগ। বিজেপি আশাবাদী এবার হুগলির মানুষের ভালোবাসা পাবেন লকেট।এদিনের জনসভায় প্রার্থী লকেট চট্টোপাধ্যায় এর পাশাপশি ছিলেন সিঙ্গুর জেডপি তিন এর সভাপতি গৌতম মোদক, সিঙ্গুর জেডপি ৫ ও ৬ এর সভাপতি। ছিলেন গত বিধানসভা নির্বাচনের সিঙ্গুরে কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সৌরেন পাত্র, সিঙ্গুর জেডপি তিন এর সাধারণ সম্পাদক সন্তোষ বাঘ।

admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Skip to toolbar